Logo
নোটিশ ::
আপনার যেকোনো সৃজনশীল লেখা পাঠিয়ে দিন আমাদের ঠিকানায়।আমাদের ইমেইল: hello.atharb@gmail.com
/ কবিতা
এই তো সেইদিন! এ পিঞ্জরার সকল রাগ,অভিমান গুলারে যতনের মোড়ক দিয়া ভালোবাসতাছিলা। মরনের আগ পর্যন্ত ভালোবাসা দিবা কইয়া কইয়া কতই না ভালোবাসতাছিলা তোমার ভালোবাসা পাওনের লাইগা অবুঝ পরাণের ভিতর ভালোবাসার বিস্তারিত
আমার বন্ধু কলম, স্বভাব তার খুবই নরম। শোনে মোর কথা, দেয় নাকো ব্যাথা। লেখে দেয় ডায়েরীর পাতায় যা আছে মনের খাতায়। তার স্পর্শ পেয়েই আমি কল্পনায় হারাই, বিকশিত করি মেধা
মরে যেতে যেতে-প্রেমিকার চোখে বাঁচার আশা দ্যাখে-প্রেমিকার ঠোঁটে মুখে । নদীর মত বয়ে চলা দুঃখ বিষাদ চুমুতে মৃত্যুঞ্জয়ী;জাগায় অমৃত স্বাদ । দন্ডিত পুরুষ-পৌরুষত্বের আশায় এক চিলতে প্রেম আসে প্রেয়সীর দরজায়
নব্য, হাতে তুলে নাও কলম, ভাঙ্গো বাঁধার দ্বার। এগিয়ে যাও দূর্বার গতিতে, কড়ানাড়ো সভ্যতার। সফলতা! সে তো দূরে নয়, হাত বারালেই ছুই। নিজ নিজ জায়গা হতে উচ্চ করো শিড়। আজ
  তুমি এসেছিলে বলে, হে জাতির পিতা গরীব ছেলেটি বৃষ্টিতে ভিজেনি। তুমি এসেছিলে বলে হে জাতির পিতা পথের ধারের বৃদ্ধা শীতে কাপেনি। তুমি এসেছিলে বলে হে বঙ্গবন্ধু, প্রতিবাদী হয়েছে বাঙ্গালী
  বিক্ষুব্ধ প্রেতাত্মাদের চোখেও আমি বিদ্ধ, লাশকাটা ঘরে, এক নারীর নগ্ন চিৎকার, আমাকে ঘায়েল করেছে, আমি বেজায় নিরানন্দ। অনাদরে হাঁটছি রাজপথে, একলা মনে, ওপারে ঝিঁঝিপোঁকার ধ্বনি,আমার ঈর্ষা জাগে। কখনো পায়ের
  ৫২ই যারা উৎস্বর্গ করেছে বুকের তাজা রক্ত, প্রাণ, তারাই এনেছে মোদের মাতৃভাষা ২১শের রেখেছে মান। একুশ মানে, রক্তে লেখা অ, আ, ক, খ ,, একুশ মানে, মায়ের মুখে বাংলা
  আমি লিখবো! একদিন এই শক্ত হাতে কলম আটকে লিখবো। আমি লিখবো! “সৌরভের কাছে পরাজিত” এক “গন্ধ বনিকের” আত্মকথন। আমি লিখবো! একদিন বৃষ্টিস্নাত ভোরে বেলকুনিতে হেলান দিয়ে লিখবো। আমি লিখবো!
Theme Created By ThemesDealer.Com