Logo
নোটিশ ::
আপনার যেকোনো সৃজনশীল লেখা পাঠিয়ে দিন আমাদের ঠিকানায়।আমাদের ইমেইল: hello.atharb@gmail.com
/ কবিতা
       (ক) নারী— তুমি মা, তুমি মহীয়সী, তুমি প্রেমিকা এর বেশী নাকো, তুমি বিরহ, তুমি জঞ্জাল—একনিষ্ঠ হৃদয়খেঁকো| (খ) প্রেম—বিরহ, ভালোবাসা কিংবা বিষাদ— অনুভব, বিদ্রোহ, নারী— সবই তোমার অব্যক্ত বিস্তারিত
সৃষ্টিকর্তার সৃষ্টিতে মোরা সবাই এক, হয়েছে তারা ছিন্নমূল বাকিরা আরেক। শীতের কাপুনিতে যখন স্থবির চারপাশ, ধন-দৌলতের ছায়ায় একদল উষ্ণতা পাচ্ছে একরাশ। বাড়ির গেইটের সম্মুখেই শুয়ে আছে এক নারী, অথচ উষ্ণতা
নিজের জীবনটা করতে পারে আত্মনিবেদন। সহ্য করতে পারে,কত জ্বালা আর ব্যথার কথন। আগলে রাখে যেন দিয়ে ভালোবাসার রশ্মি , ও গো মোর প্রিয় প্রৌঢ় রমনী। গড়তে চায়,যেন হয়, সুশীল ব্যক্তিবর্গ।
তুমি কত দেখেছো আকাশ? আর কত ভিজেছো বর্ষায়? আমি প্রতিনিয়ত অম্বর তলে ভিজি অপ গলিত অম্বুদে। আমি শত দেখেছি বিদ্বান নেই তবুও স্বাদ কাহারও! কেউ খুশি নয় নিজ জীবনে সুখ
  ছেড়ে যদি চলেই যাবে তাহলে, এত মায়ায় কেন জড়ালে? ছেড়ে যদি দেবেই তাহলে, এই হাতটি কেন ধরেছিলে? আমি তো তোমার প্রেমিক হতে চাইনি সারা জীবনের সাথী হতে চেয়েছি তোমার
আধারের ঘনঘটা ঠেলে আলো আনতে দাও বাতিলের প্রথার গ্রাসতা থেকে দেশটাকে যদি বাঁচাতে চাও তবে বজ্রকন্ঠের ওই দাবি গুলো মুছো না মিছে ছলে দাঁড়ি, টুপি ধারী মানুষেরা তো সত্য, শুদ্ধ,
আমি ওইখানটাতেই ছিলাম-তোর আয়নায়। তুই লাল সাদা শাড়িতে, খোপায় শিউলি গাথা, আমার তরে লাল টিপ কপালে বুনছিলি। ঠোটে হালকা লাল লিপস্টিক। তোর কাজল ছাড়া চোখ, তবুও কাজল রঙে মোড়ানো। আমার
অন্তর্ঘাত                       (ক) দেহের খুব কাছের দূর্বাঘাসটায় শিশির জমতে শুরু করেছে, এমন সুবার্তায় তুমি বিষন্নতা ভুলে গিয়ে সুখ ছড়াবে চারিদিকে?
Theme Created By ThemesDealer.Com