Logo
নোটিশ ::
আপনার যেকোনো সৃজনশীল লেখা পাঠিয়ে দিন আমাদের ঠিকানায়।আমাদের ইমেইল: hello.atharb@gmail.com

তানজিনা আক্তার রিমি’র একগুচ্ছ কবিতা

অঙ্কন ডেস্ক / ১৫১ বার
আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর, ২০২০

 

 

নতুন ভোর

আঁধার পেরিয়ে আলোর মশাল
আনবো ভুবন জুড়ি
আমরা নবীন, আমরা প্রবীণ
হাতে হাত দাও আজ তুলি।

হাটু গেড়ে বসে না থেকে
আজ উচ্চ কর শির,
নমঃ নমঃ প্রথা দূরে ঠেলে আজ
আনবো নতুন ভোরের শিশির।

পাদ্রী মৌলবি মোরা ভাই ভাই
এখানে ধর্মের কোনো তফাৎ নাই,
যে যার ধর্ম করবে পালন
এমন এক সমাজ গড়তে চাই।

হিংসা বিদ্বেষ হানাহানি দূরে ঠেলে
ঐক্যের জয়ধ্বনি তুলব,
ভালোবাসার বন্ধনের দ্বারা
নতুন এক সমাজ গড়ে তুলব।

মানবতার পরিচয়ে বেড়ে উঠবে শিশু
বর্ণ বিদ্বেষ ত্যাগ করি,
তবেই ধরায় উঠবে নব সুরুজ
ভাঙবে বৈষম্য ধম্ভের গিরি।

 

পথশিশু

নেই ঘর, নেই বাড়ি
আজ পথশিশু আমি।
ভালোবাসা নেই আদর সোহাগ নেই
জীবন মোর খুব ই কম দামি!

রাস্তার কুকুর সঙ্গী আমার
সভ্য মানবের এই সমাজে,
ক্ষুধার জ্বালা বুঝবে কেমনে
আছেন যারা ঐ মহা প্রাসাদে!

ত্রানের নামে ফটোসেশন করে লোকজন ;
ডুকরে কেঁদে উঠে তখন মন।
আজ পথশিশু তাই,
লাজ লজ্জা থাকতে নাই!

হয় তো কোনো উষ্ণ ভালোবাসার
ফসল আজকের এই পথশিশু,
জবাব দিতে পারবে কি সমাজ
কেন পথশিশুকেই এর জন্য করতে হয় মাথা নিচু?

বিশাল ভূমি বিছানা আমার
আকাশ আমার ছাদ,
বিশ্বজুড়ে প্রাসাদ আমার
আমিই তার মহারাজ।

কান্না সদা সঙ্গী আমার
ডাস্টবিন মোর খাবার,
সভ্য তোমার সমাজকে আজ
মন জানায় ধিক্কার!

 

 

তুমি ফিরে এসো

তুমি ফিরে এসো প্রিয়
সন্ধ্যে নামার আগে।

করিমের মায়ের মুখের হাসি
দারিদ্র্যের কারণে, যেটা আজ মেঘের আড়ালে,
তুমি ঐ মেঘটাকে বৃষ্টি বানিয়ে নিয়ে আসো।

কেরামত চাচার কাজ নেই বলে
তার রান্না ঘরের যেই হাড়িটা আজ খালি,
তুমি সেই হাড়িটা ভরিয়ে নিয়ে এসো।

তুমি ফিরে এসো প্রিয়
ঠিক সন্ধ্যে নামার আগে।

রাস্তার ধারের মিনা মেয়েটার
ক্ষুধার জ্বালায় যে হাসিটা হারিয়ে গেছে,
তার জন্য এক ঝিলিক হাসি নিয়ে এসো।

দশতলা বাড়িওয়ালার টিনা মেয়েটির
টেবিল ভর্তি খাবার তবু রুচি নেই মুখে,
তার জন্য আহারের প্রতি ভালোবাসার একটা বীজ নিয়ে এসো।

তুমি ফিরে এসো কিন্তু
ঠিক সন্ধ্যে নামার আগে।

বিত্তশালী সালাম সাহেবের
টাকার পাহাড়ে থেকেও যার ঘুম হয় না,
তার জন্য এক প্যাকেট ঘুম নিয়ে এসো।

পাশের বাড়ি রহিম চাচার মেয়েটার
ডাক্তার হবার স্বপ্ন পূরন হয়নি,
তার জন্য কিছু টাকা নিয়ে এসো।

তুমি ফিরে এসো প্রিয়
ঠিক সন্ধ্যে নামার আগে।

সফী উদ্দিনের মেয়েটার, যার মা নেই বলে
দিনের উচ্ছৃঙ্খলতার পরেও রাত্রি শেষে থাকে ভেজা চোখ,
তার জন্য মায়ের মমতার একটু পরশ নিয়ে এসো।

বৃদ্ধাশ্রমের যেই ফুলগুলোর
যত্নের অভাব পড়ে গেছে,
তাদের জন্য আদর-ভালোবাসার একটা বাক্স নিয়ে এসো।

তুমি ফিরে এসো কিন্তু
ঠিক সন্ধ্যে নামার আগে।

সত্যের সন্ধানে যাদের আজ
কলমের কালি ফুরিয়ে গেছে,
তাদের জন্য একটা দোয়াত-কালি নিয়ে এসো।

ন্যায় কথা দেখতে-শুনতে
যাদের আজ চোখে-কানে পর্দা পড়ে গেছে
তাদের জন্য একটা চিকিৎসক নিয়ে এসো।

তুমি ফিরে এসো প্রিয়
ঠিক সন্ধ্যে নামার আগে।

তুমি বরং বৈষম্যহীন
এক জগৎ নিয়েই এসো,
যেখানে ভালোবাসা-মায়া থাকবে অনন্ত
ঠিক বেলা ফুরাবার আগ পর্যন্ত।

 

ঝড়ের দিনে

মেঘ গুড়গুড় বৈশাখী ঝড়ে
আম পড়বে টুপটাপ করে,
আম কুড়াবি বল!
সখি জলদি কইরা চল।

মোড়ল বাগে আমের মেলা
তুফান কালে পড়ার পালা,
এমন সময় ঘরে আমি
কেমনে থাকি বল!
সখি জলদি কইরা চল।

দক্ষিণ ধারে মেঘ উঠেছে
আসবে তুফান মন বলেছে,
ভিজব মোরা আজ দুই বুড়ি
আম আনবো ঝুড়ি ঝুড়ি।
এমন সুযোগ কেমনে ছাড়ি বল!
সখি জলদি কইরা চল।

 

বাসনা

স্বপ্নগুলো উড়িয়ে দিলাম প্রজাতির ডানায়,
নীড়ের তারা পথ ভুলেছে
ফিরবে না আর বাসায়।

রঙিন যত স্বপ্ন ছিলো
রাঙিয়ে দিলাম তোমায়
আমি না হয় রইলাম পড়ে
সাদা কালোর মাজায়।

মুক্ত আকাশ দিলাম তোমায়
ভুবন জোড়া হাসি,
স্বপ্নগুলো না হয় আমি
দূর থেকেই ভালোবাসি।

ফুল থেকে ফুলে ছড়িয়ে গিয়ে
স্বপ্নগুলো বুনে দিও,
স্নেহপ্রীতির মালায় গেঁথে
ভুবনটাকে রাঙিয়ে দিও।

 

 


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com